ভাঙলো-গড়লো যত রেকর্ড ছক্কাবৃষ্টির ম্যাচে

এ্যাকশন নিউজ ডেস্ক

পোস্ট এর সময় : ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ, বুধ, জুন ১৯, ২০১৯, ভিজিটর : ০

স্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আজ (মঙ্গলবার) রীতিমতো ছক্কাবৃষ্টিই হয়েছে বলা চলে। বিশ্বরেকর্ড গড়ে ইংল্যান্ড হাঁকিয়েছে ২৫টি ছক্কা। জবাবে আফগানিস্তানও বল উড়িয়ে সীমানাছাড়া করেছে ৮ বার। সবমিলিয়ে ৩৩ ছক্কার ম্যাচে রেকর্ড হয়েছে আরও অনেক।

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়রন মরগ্যানের ব্যক্তিগত রেকর্ড থেকে শুরু করে ইংল্যান্ডের দলীয় রেকর্ড- সবই হয়েছে এ ম্যাচে। বল হাতে সেঞ্চুরি করে রেকর্ডের পাতায় নাম তুলেছেন রশিদ খান, আবার ৩৯৭ রান করে নিজেদের দলীয় রেকর্ড করেছে ইংল্যান্ড।

জাগোনিউজের এ আয়োজনে দেখে নেয়া যাক আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচের যত রেকর্ড:

১৭ – মাত্র ৭১ বলে ১৪৮ রানের ইনিংস খেলার পথে এক ইনিংসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ছক্কার বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন ইয়ন মরগ্যান। এতদিন ধরে এক ইনিংসে ১৬টি করে ছক্কার রেকর্ড ছিলো ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্স ও রোহিত শর্মার দখলে।

১১ – নিজের নয় ওভারের স্পেলে ১১টি ছক্কা হজম করেছেন আফগানিস্তানের তরুণ লেগস্পিনার রশিদ খান। যা কি-না ওয়ানডে ক্রিকেটে কোনো বোলারের সর্বোচ্চ ছক্কা খাওয়ার রেকর্ড। এছাড়া ১৯৯৯ সালের পর থেকে যেকোনো ফরম্যাটেই সর্বোচ্চ ছক্কা খাওয়ার রেকর্ড এটি।

২৫ – মরগ্যানের ১৭ ছক্কার ছাড়াও বেয়ারস্টো, রুট ও মঈনের কল্যাণে নিজেদের ইনিংসে মোট ২৫টি ছক্কা হাঁকায় ইংল্যান্ড। যা কি-না এক ইনিংসে সর্বোচ্চ দলীয় ছক্কার রেকর্ড। তারা ভেঙেছে নিজেদেরই রেকর্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি বছরের শুরুতে এক ইনিংসে ২৪টি ছক্কা মেরেছিল ইংল্যান্ড।

২২ – এ বিশ্বকাপে এরই মধ্যে ২২টি ছক্কা এসেছে মরগ্যানের ব্যাট থেকে। যা কি-না বিশ্বকাপের এক আসরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ক্রিস গেইল হাঁকিয়েছিলেন ২৬টি ছক্কা।

৫৭ – নিজের রেকর্ডগড়া ইনিংসটি খেলার পথে মাত্র ৫৭ বলে শতকে পৌঁছান মরগ্যান। যা কি-না বিশ্বকাপের ইতিহাসে চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড। এছাড়া ওয়ানডে ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের পক্ষে দ্রুততম সেঞ্চুরি এটি।

১১০ – নিজের ৯ ওভারের স্পেলে সবমিলিয়ে ১১০ রান খরচ করেছেন রশিদ খান। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটিই সবচেয়ে বাজে বোলিংয়ের রেকর্ড। এতদিন ধরে বিশ্বকাপে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি রান খরচের রেকর্ডটি ছিল নিউজিল্যান্ডের পেসার মার্টিন স্নেডেনের নামের পাশে। ১৯৮৩ সালে ৬০ ওভারের বিশ্বকাপের আমলে তিনি ১২ ওভারে খরচ করেছিলেন ১০৫ রান।

৭ – রশিদের হজম করা ১১টি ছক্কার মধ্যে ৭টিই আসে মরগ্যানের ব্যাট থেকে। ওয়ানডে ক্রিকেটে নির্দিষ্ট কোনো বোলারের বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ড এটি। এতদিন ধরে জেসন হোল্ডারের বলে ২টি ম্যাচে ৬টি করে ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ড ছিলো এবি ডি ভিলিয়ার্সের দখলে।

৩৯৭ – ওয়ানডে বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের দলীয় সর্বোচ্চ রানের সংগ্রহ এটি। তারা ছাড়িয়ে গেছে এবারের আসরে বাংলাদেশের বিপক্ষে করা ৩৮৬ রানের ইনিংসটিকে। এছাড়া বিশ্বকাপের ইতিহাসে ষষ্ঠ সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ এটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *